কাহালু নন্দীগ্রাম উন্নয়ন পরিষদ সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক, স্থানীয় জনগন দ্বারা পরিচালিত সামাজিক, সাংস্কৃতি সংগঠন। মনজুরুল ইসলাম মেঘ রচিত ও উদ্ভাবিত “স্থানীয় উন্নয়ন পরিষদ” বা “Development Council” এর পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে কাহালু নন্দীগ্রাম (বগুড়া-৪) সংসদীয় আসনের ১৪ টি ইউনিয়নে উন্নয়ন করার লক্ষ্যে কাহালু নন্দীগ্রাম উন্নয়ন পরিষদ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। দেশের বাহিরেও কয়েকটি অঞ্চলে এই প্রজেক্টির পরীক্ষামূলক বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পরবর্তীতে এই প্রজেক্ট টি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, অঞ্চল ও জনগন নিজ নিজ উন্নয়নে ব্যবহার করতে পারবেন।

কেএনডিসি এর স্লোগান “আমরা কেউ কারু প্রতিযোগি নাই সবাই সবার প্রতিবেশি” ইংরেজিতে “We are not competitor but neighbors”

“স্থানীয় উন্নয়ন পরিষদ” বা “Development Council” ব্যবস্থাপনায় উন্নয়ন, সুশাষন ও সুফল বাস্তবায়নের জন্য  “ভিলেজ পার্লামেন্ট” এবং “ইউনিয়ন কেবিনেট” নামে দুটি আলাদা আলাদ পদ্ধতিতে সকল জনগন অংশগ্রহণ করবেন। স্থানীয় মানব সম্পদকে প্রশিক্ষনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়ন, ন্যায় বিচারের নিশ্চয়তা, ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্প প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বেকার ও নারীদের কর্মসংস্থান, ঝড়ে পড়া শিশুদের বিশেষ পদ্ধতির মাধ্যমে পাঠদান। সুশাষন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য জনপ্রতিনিধিদের দায়বদ্ধতা বিষয়ক সচেতনতা। মাদক মুক্ত সমাজ গঠনের জন্য সুস্থ বিনোদন ও ক্রিড়া চর্চার ব্যবস্থা করার মধ্য দিয়ে মূলত “স্থানীয় উন্নয়ন পরিষদ” সফলতা অর্জন করে।

জাতিসংঘ ও বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত SDGs বাস্তবায়নে স্থানীয় পর্যায়ে যে সকল প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করা সম্ভব সেই সকল প্রজেক্ট নিয়ে স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘ মেয়াদী উন্নয়ন কাজের অংশিদার হিসাবে কাজ করবে কেএনডিসি।

———————————————————————————————————————————————————————————————————————————–

কাহালু ও নন্দীগ্রাম উপজেলার- ভৌতকাঠামো, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, দর্শনীয় স্থান, শিক্ষাহার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিভিন্নয় বিষয় সম্পর্কে উন্নয়ন গবেষনা টিম কাজ করবেন।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

কেএনডিসি’র নির্বাহী পরিষদ  কাঠামো:-

উপদেষ্টা মন্ডলী- সংশ্লিষ্ট এলাকার এমপি, ডিসি, এসপি, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, ওসি, কলেজের অধ্যক্ষ, অধ্যাপক, জাতিয়-আন্তর্জাতিক ব্যাক্তিত্ব ও এলাকার সুনামধন্য ব্যাক্তিবর্গ কে উপদেষ্টা হওয়ার আমন্ত্রণ জানানো হবে।

প্যাট্রোন- সমাজের বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ, দানশীল ব্যাক্তিত্ব, গুনীজন ও সুধীনজনেদের নিয়ে একটি প্যাট্রোন কমিটি থাকবে।

ইসি বোর্ড- উন্নয়ন পরিষদকে সঠিক ভাবে পরিচালনা করার জন্য একটি নির্বাহী কমিটি বা ইসি বোর্ড থাকবে।

স্ট্যান্ডিং কমিটি- প্রত্যেকটি প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করার জন্য, প্রজেক্ট ভিত্তিক একটি স্ট্যান্ডিং কমিটি থাকবে।

পরিচালনা পরিষদ- উন্নয়ণ পরিষদের কার্যাবলী পরিচালনা করার জন্য একটি পরিচালনা পরিষদ থাকবে। তারা প্রত্যেকটি গ্রামের সাথে সমন্বয় করে উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

কেএনডিসি’র কেবিনেট পরিষদ কাঠামো:-

পাবলিক পার্লামেন্ট- প্রত্যেকটি গ্রামের সমস্যা ও উন্নয়ন বিষয়ে ভিলেজ পার্লামেনট এর একজন গ্রাম সদস্য ও একজন মডারেটর পাবলিক পার্লামেন্টে উপস্থাপন করবেন। পাবলিক পার্লামেন্ট সভা বছরে কমপক্ষে ১ বার সর্বোচ্চা ৩ বার প্রয়োজন সাপেক্ষে অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাহী টিম– এই টিমে বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক কো-অর্ডিনেটর থাকবেন। তারা বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও এই টিমে প্রত্যেক ইউনিয়নে একজন করে ডেলিগেট থাকবেন।

ইউপি কেবিনেট– এই কেবিনেটি থাকবে-

                                            (i) ডোনার- বিভিন্ন সামাজিক কাজে তারা ছোট ছোট উপহার সামগ্রী দিবেন, বা গ্রামের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবেন।

                                            (ii) ভিলেজ পার্লামেন্ট- প্রত্যেক গ্রামে একটি করে উন্নয়ন কমিটি থাকবে। প্রাপ্ত বয়সী নারীপুরুষ যে কোন লোক

                                                                                        এই কমিটির সদস্য হতে পারবেন।

                                            (iii) ইউপি কেবিনেট- ১৬ বছরের উর্দ্ধে ৩০ বছরের কম, যে কেউ এই কেবিনেটে থাকতে পারবেন। এই কেবিনেটে

                                                                                       একজন ইউপি ডেলিগেট এবং প্রত্যেক ওয়ার্ডে  একজন মেয়ে, একজন ছেলে মডারেটর

                                                                                       থাকবেন। যে সেকল ওয়ার্ড দুইয়ের অধিক গ্রাম নিয়ে গঠিত সেই সকল ওয়ার্ডে ২ টি গ্রামের অতিরিক্ত

                                                                                      গ্রামেও ১ জন করে মডারেটর থাকবেন।

                                           (iv) একশন প্রজেক্ট- মডারেটর দ্বারা সংশ্লিষ্ট গ্রাম/মহল্লাতে বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে। বাল্য বিবাহ,

                                                                                      নারী নির্যাতন ও হয়রানী প্রতিরোধ করা, শিক্ষাহার বৃদ্ধি করা, বৃক্ষরোপন, লাইব্রেরী চর্চা,

                                                                                     সুস্থ বিনোদন ও ক্রিড়া চর্চা, ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্পের উন্নয়নে ভূমিকা রাখা, যে কোন মহামারী ও

                                                                                     দূর্যোগে সামাজিক সম্পর্ক বজায় রাখা ও সহযোগিতা করা।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

এম্বাসেডর- স্কুল, মাদরাসা, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন করে শিক্ষার্থী এম্বাসেডর হিসেবে থাকবেন, তিনি সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন, সামাজিক, সাংস্কৃতিক বিষয়ে ভূমিকা রাখবেন তার টিম নিয়ে। এ ছাড়াও বাংলাদেশের প্রত্যেক জেলাতে অবস্থানকারী (কাহালু নন্দীগ্রাম এলাকার) একজন সম্মানিত ব্যাক্তিকে ডিষ্ট্রিক্ট এম্বাসেডর হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হবে, তিনি সংশ্লিষ্ট সেই জেলায় (কাহালু নন্দীগ্রাম এলাকার) যে সকল মানুষ বসবাস করবেন তাদের সুবিধা অসুবিধা বিষয়ে টিম গঠন করে কাজ করবেন। অনুরোপ ভাবে দেশের বাহিরে প্রত্যেক দেশে একজন এম্বাসেডর এবং টিম থাকবে, সেই টিম বিদেশে অবস্থানত সংশ্লিষ্ট দেশে (কাহালু নন্দীগ্রাম) জনগনের জন্য বিপদে আপদে বা নানা কাজে সম্পৃক্ত থাকবেন।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

কাহালু নন্দীগ্রাম এলাকার উন্নয়নের জন্য গৃহিত প্রজেক্ট সমূহ:- (Sustainable project for KN area)

(i) Quality Education– প্রতিটি শিক্ষার্থীর যেনো শিক্ষার আলো পায় এবং গুনগত শিক্ষার বিস্তার করতে হবে।

(ii) Skill Development– প্রশিক্ষনের মাধ্যমে বেকার জনগোষ্টিকে কর্মদক্ষ হিসাবে গড়ে তোলা হবে।

(iii) Disability Development– প্রতিবন্ধীদের মেধা অনুযায়ী দক্ষ করে গড়ে তোলা এবং তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা।

(iv) Gender Equality– মানবিক বিষয়ে নারী ও পুরুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা, ন্যায় বিচার ও সুরক্ষা দেওয়া। নারীদের বিভিন্ন নির্যাতন ও অনলাইনে বিরক্তকারীদের শাস্তির ব্যবস্থা করা। কন্যা শিশু যেনো মৌলিক অধিকার নিয়ে সকল প্রকার সামাজিক, মানষিক বাধা পেরিয়ে সফলতা অর্জন করতে পারে সেই ব্যাপারে সুযোগ ও পরিবেশ তৈরী করা।

(v) Safe Water & Sanitation– সুপীয় পানি, স্যানিটেশন এর ব্যবস্থা করা।

(vi) Tree Plantation– বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে সবুজ বনায়ন সৃষ্টি করে পরিবেশর ভারসামস্য রক্ষা করা।

(vii) Blood Donation and Public Health– অত্র এলাকার জনগনের রক্তের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিলে সহায়তা করা এবং জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সহায়তা প্রদান করা হবে।

(xiii) Justice and Peace– অত্র এলাকার জনগনের ন্যায় বিচার ও শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য জনগনকে সচেতন হতে উৎসাহিত করা হবে।

(ix) Library– বিভিন্ন স্থানে লাইব্রেরী প্রতিষ্ঠা ও ভ্রাম্যমান লাইব্রেরী স্থাপনের মাধ্যমে বই পড়তে উৎসাহিত করা।

(x) Social Business– বেকার জনগোষ্টিকে আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে সামাজিক ব্যবসায় উৎসাহিত করা এবং কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করা।

 

এই প্রজেক্টগুলি  কেবিনেট এর মাধ্যমে  প্রত্যেক ইউনিয়ন ভিত্তিক বাস্তবায়ন করা হবে। 

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

সাহিত্য, শিল্প ও বিতর্ক প্রতিযোগিতার চর্চ্চা করা-  এই অঞ্চলের যে সকল কবি, সাহিত্যিক, শিল্পীর জন্ম হয়েছে তাদের শিল্পকর্ম সারা পৃথিবী ব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়া। নতুন প্রজন্মের যারা কবিতা, গল্প, গান, উপন্যাস, প্রবন্ধ বা ভ্রমণ কাহিনী লেখেন তাদের লেখা প্রচার করার ব্যবস্থা করা। বিভিন্ন হস্ততৈরী কারুশিল্প’র প্রচার করা, কবিতা আবৃতি, চিত্রাংকন, গল্প লেখা প্রতিযোগিতা, বির্তক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

সংস্কৃতি চর্চা- বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা, সচেতনতা মূলক নাটিকা পরিবেশন করা, জনসচেতনতা মূলক গান প্রচার করা, থিয়েটার কার্যক্রম সক্রিয় করা, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবসগুলি পালন করা এবং সেই বিষয়ে মানুষকে অবহিত করা।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

খেলাধূলা- সুস্থ থাকার জন্য ক্রিড়া সবচেয়ে বড় ব্যায়াম, তাই বিভিন্ন খেলার চর্চা করার ব্যবস্থা করা, ক্রিকেট, ফুটবল, ভলিবল, ব্যাটমেন্টন, প্রভৃতি টুর্নামেন্টের আয়োজন করে ক্রিড়া চর্চার ব্যবস্থা করা।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

হস্ত ও কারুশিল্পের প্রসার- কাহালু নন্দীগ্রামের অনেক হস্ত ও কারু শিল্প আজ বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হয়েছে গেছে। যেমন পাঁচখুরের “তালেল শাষের টুপি, ঝুরি”, আড়োলা উত্তর পাড়া ও যোগীর ভবনের “তালপাতার হাতপাখা”, চক পাড়ার “সুতার টুপি”, অন্ধ ডুংগিবয়াতি ফরিদ সাহেবের “ডুংগির সারিনদা”, প্রয়াত আবেদ সাহেবের “তালপাতার সং”। কাহালু-নন্দীগ্রাম এলাকার অনেক নারী নিজেদের মেধা দিয়ে যুগ যুগ ধরে বিভিন্ন শিল্প চর্চা করে আসছেন, আমরা গুরুত্ব অনুযায়ী এই শিল্প ও মেধাসত্বকে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিতে চাই।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

নিউজ বিভাগ- প্রত্যেক ইউনিয়ন থেকে একজন করে শিক্ষানবিশ সংবাদ প্রতিনিধি নিয়ে “সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয়” সংবাদ পরিবেশনের ব্যবস্থাও থাকছে এই উন্নয়ন পরিষদে। কোন এলাকার উন্নয়নের জন্য সেই এলাকার জনগনের কাছে সত্য ও সঠিক তথ্য থাকা জরুরী। কোন ব্যাক্তি বা জনগন যখন ই কোন অন্যায় কাজ করবেন তখন ই সেই নিজউ টি প্রচার করতে হবে, তাহলে অপরাধ প্রবনতা কমে যাবে। আবার কোন জনগন ভালো কাজ করলে সেই সংবাদও প্রচার করতে হবে তাহলে অনেকেই সেই সংবাদ থেকে নিজেকে অনুপ্রানিত করতে পারবেন।

————————————————————————————————————————————————————————————————————————————

কাহালু নন্দীগ্রামের যে কোন জনগনের যে কোন পরামর্শ আমরা সদরে গ্রহণ করবো।